a WRITING by chaitali chattopadhyay

বাংলা English

আমার স্বপ্নরা


“ভায়োলেন্ট ড্রিম আমি কখনো
দেখি না। ঘুমের মধ্যে
চ্যানেলগুলো আমি ধরি সেগুলো
রূপকথা, খেলনা, রাজকন্যা,
প্রাসাদ, নিরীহ জন্তুদের দেখায়।
বড়জোর জন্মদিনের কেক কাটা
হয়। এছাড়া কোনো ছুরি,
রিভলভার,এস্কালেটর, রাতের
এয়ারপোর্ট, সানগ্লাস – কিছু থাকে
না। ঘুমের মধ্যে ওসব নিয়ে আমার
কোনো কাজ নেই।”
(নবারুণ ভট্টাচার্য)


স্বপ্ন ভাবি যখন, তখনই নবারুণদাকে মনে পড়ে। ওঁর লেখা,গায়ে কাঁটা দেয়, কবিতা, স্বপ্নের অনুষঙ্গ গেঁথেগেঁথে -রাখা। মনে-মনে একটা মনস্তাত্ত্বিক বিশ্লেষণও ঘটে চলে যেন! স্বপ্নে মানুষতো তার প্রিয় কিংবা অপ্রিয় ঘটনারই দৃশ্য দেখে। যে ব্যাপারে সে নির্বিকার,টোট্যালি অসচেতন বা নিস্পৃহ ,তা কি আসে কখনও।কোনো না কোনোভাবে একটা তন্তু কিংবা আঁশ , তার জেগে-থাকা মনের গায়ে লেগে ছিল বলেই না সে স্বপ্নে এল!
আমার স্বামী যখন আর নেই, তখন তাকে স্বপ্নে পেলাম একদিন।বাড়ি ঢুকছে। আমি মৃদুমৃদু ক্যাজুয়াজুলি জানতে চাইছি, এতদিন কোথায় ছিলে। একটা খবর তো দেবে…ও আবার মোটেও বনলতা সেন নয়, তাই পাখির বাসার মতো চোখ টোখ না তুলে, হইহই করে চেঁচাতে লাগল, আরে,ল্যান্ডস্লাইডে আটকে গেছিলাম যে!
পরে, ঠাণ্ডা মাথায় যুক্তিচেরা বিশ্লেষণ করতে গিয়ে আমার মনে হয়েছে, প্রথমত,ওর মৃত্যু হয়তো এখনও আমার মনের কিয়দংশ সাড়া দেয়নি।দ্বিতীয়ত,ও যেহেতু জিওলজিস্ট,তাই কোনোভাবে ধ্বসের অথবা শিলাস্তর আলগা হয়ে যাওয়ার বিপর্যয় এল আমার স্বপ্নে। ওই একবারই স্বপ্ন টুকে রেখেছিলাম আমি। তারপর একটা কবিতা লিখেছিলাম, আমার ক্রিয়েটিভ গৃহিণীপনা কাজে লাগিয়ে।

ধ্বসের ওপ্রান্তে তুমি।

চোখে মণি জ্বেলে,

শিলাস্তর অধ্যয়ন কর।

ধুলোবালিমাখা, আমাদের সাধের ভুবন

মাঝখানে চাপা পড়ে থাকে।

কেউ ওঠায় না…

ধ্বসের এপ্রান্তে আমি।

হাতে রান্নাঘর,

আড়মাছে লবণ মাখাই

না না। আমার কাছে স্বপ্নের লজিক নেই। সবটাই অনুমানভিত্তিক জ্ঞান লিখছি।যদি আগেই টের পেয়ে যাই স্বপ্ন আমার জন্য কী কী ব্যঞ্জন রেঁধে রেখেছে, তবে তো মাধুর্য অর্থ বা আতঙ্ক কোনোটাই জাগবে না!

স্বপ্ন আমার জন্য সুখ না অসুখ বরাদ্দ করবে ঘুমিয়ে পড়ার আগে জানি না কিছুই। ঘুম ভেঙেও যে জেনে ফেলি,এমনটা নয়! স্বপ্নকে শিল্পকাজ ভেবে আঁচল ওড়ানোর কোনো ইচ্ছে নেই আমার। জেগে উঠে কখনও নিপাট মুছে-ফেলা স্লেট মনে হয় সেই জাগরণকে, কখনও স্বপ্নটা থাকে নিটোল। কখনও থাকে এবড়োখেবড়ো। থম্ মেরে বসে থাকি আমিও। হ্যাঁ, হ্যাঁ আমার প্রাচীন ও নবীন প্রেমিকরা মার্চ-পাস্ট করে যাচ্ছে, নগ্ন শরীর, শিশ্ন দুলছে পেন্ডুলামের মতো, এমন স্বপ্নের ইচ্ছে পোষণ করে থাকি আমি। এই আকাঙ্খার পূর্বাপর বা হিসাবে ক-ছটাক প্রেম,ক-পেগ যৌনতা, ক’টা চাবুকের দাগ বা নারীবাদ আছে, জানি না। কিন্তু সে আজও দেখে উঠতে পারিনি। আশা রাখি, অচিরেই এ-স্বপ্ন দেখে ফেলব আমি।

চৈতালী চট্টোপাধ্যায়
চৈতালী চট্টোপাধ্যায়ের পাঠ্যবিষয় পদার্থবিজ্ঞান হলেও,বিষয়ান্তর,সাহিত্য। ধ্যান,কবিতা।কিন্তু গদ্যেও স্বচ্ছন্দ বিচরণ।
 অসংখ্য গদ্য ও পদ্যবই প্রকাশিত। ওঁর বই দেশি বিদেশি  ভাষায় অনুদিত হয়েছে। পেয়েছেন সরকারি বেসরকারি নানা সম্মাননা। ভালোবাসেন গান,ভ্রমণ ও বন্ধুতা।

© All rights reserved by Torkito Tarjoni

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *